\

পুলিশের গাড়িতে আগুন, গুলি, টিয়ার গ্যাস শেল, ভোটের হাওয়ায় রণক্ষেত্র নয়াপল্টন

বৃহস্পতিবার, ১৫ নভেম্বর ২০১৮ | ৯:৫৬ পূর্বাহ্ণ | 314 বার

পুলিশের গাড়িতে আগুন, গুলি, টিয়ার গ্যাস শেল, ভোটের হাওয়ায় রণক্ষেত্র নয়াপল্টন

মনোনয়ন ফরম বিতরণ কার্যক্রমের মধ্যেই রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে পুলিশের সঙ্গে দলটির নেতা-কর্মীদের ব্যাপক সংঘর্ষ হয়েছে।
গতকাল দুপুরে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস মিছিল নিয়ে দলীয় মনোনয়ন ফরম কিনতে এলে রাস্তায় যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। পুলিশ তাদের সরিয়ে দিতে গেলে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। নেতা-কর্মীদের ধাক্কাধাক্কি আর পুলিশের ফাঁকা গুলি পরে রূপ নেয় ভয়াবহ সংঘর্ষে। ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া, ইটপাটকেল বিনিময়ের পর পুলিশের টিয়ার গ্যাস ও রাবার বুলেটে মুহূর্তেই নয়াপল্টন হয় রণক্ষেত্র। সংঘর্ষে বিএনপির নেতা-কর্মীরা পুলিশের দুটি গাড়িতে আগুন ধরিয়ে দেয়। এ ছাড়া রাস্তায় চলাচল করা বেশ কিছু যানবাহন তারা ভাঙচুর করে।

তবে বিএনপির নেতা, কর্মী ও সমর্থক এত বেশি ছিল যে, পুলিশ সেখান থেকে একপর্যায়ে পিছু হটে। বেলা ১টা থেকে এক ঘণ্টার বেশি সময় ধরে চলা এই সংঘর্ষে পুলিশসহ অর্ধশতাধিক ব্যক্তি আহত হয়। প্রায় পাঁচ ঘণ্টা পুরো এলাকার দোকানপাট, ব্যবসা-বাণিজ্য ছিল বন্ধ। এ সংঘর্ষের জন্য দুই পক্ষই পরস্পরকে দোষারোপ করেছে। বিএনপি বলেছে, ‘সরকারের নির্দেশে’ পুলিশ বিনা উসকানিতে তাদের নেতা-কর্মীদের ওপর ‘হামলা’ চালিয়েছে। অন্যদিকে পুলিশ বলেছে, নির্বাচন সামনে রেখে ‘ইস্যু তৈরির লক্ষ্যে’ বিনা উসকানিতে বিএনপির কর্মীরা এ ঘটনা ঘটিয়েছে। এ ঘটনায় তাদের একজন অতিরিক্ত উপকমিশনার, দুজন সহকারী পুলিশ কমিশনারসহ ২১ জন পুলিশ এবং দুজন আনসার সদস্য আহত হয়েছেন বলে জানিয়েছে পুলিশ।

মন্তব্য করতে পারেন...

comments

Development by: webnewsdesign.com